রঞ্জনবাবুর কোলেস্টেরল প্রচণ্ড হাই। হার্টে ব্লকেজ প্রায় সিক্সটি পারসেন্ট। ডাক্তারবাবুর কড়া নিষেধ তেলে ঝালে খাবার নৈব নৈব চ। তিন্নির বয়েস মাত্র বাইশ। এর মধ্যেই তেল, মশলাদার খাবারে রুচি নেই এক্কেবারে। রোজ মায়ের সঙ্গে এই নিয়ে বিশ্বযুদ্ধ বেধে যায়। রঞ্জনবাবুর স্ত্রী বা তিন্নির মায়ের মতো অনেকেই এই সমস্যায় জর্জরিত। তেল ছাড়া রান্না! নামমাত্র তেলে রান্না! কী করে সম্ভব? আদৌ কি সুস্বাদু হবে সেই রান্না? এরকম হাজারও প্রশ্নে কপালে ভাঁজ পড়ে বাঙালির। এবার সেই সমস্যার সমাধান হ্যাংলায়। তেল ছাড়া বা নামমাত্র তেলে বা একান্ত প্রয়োজন হলে ছিটেফোঁটা তেল দিয়ে রান্নার পড়েও কিভাবে খাবার সুস্বাদু করা যায়– থাকল সেইসব রেসিপি।  তেল ছাড়া মাছ-মাংস-স্ন্যাক্স তো বটেই, রোস্টেড বা বেকড রান্নাও এবার হ্যাংলার মলাট কাহিনির অংশীদার। থাকছে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও পুষ্টিবিদের পরামর্শ। সর্ষের তেলের উপকারিতা ও কাঠের ঘানিজাত তেলের বিস্তারিত  আলোচনা আর তেল ছাড়া রান্নার সরঞ্জামের গল্প থাকছে হ্যাংলার পাতায়।